ভজ গুরু অকৈতবে

ভজ গুরু অকৈতবে।
এবার গরজ ছাড়তে হবে।।

ছাড় কৈতবের গরজ,
মদে মত্ত গরজ,
ভবপারের বীজ
সব ভেঙে যাবে।।

যেদিন ধ্বজে হবি মূঢ়া,
ভবপারের গোড়া,
কোন্ নবাবের খুড়া
তোরে পার করিবে।।

কর অকৈতবের সেবা,
ছাড় দেবী-দেবা,
বাসনা মনে আর না করিবে।।

কর অনন্যভজন,
অজগল স্তন,
সকল অকারণ
তেয়াগিবে।।

এসে ছাড় রে প্রপঞ্চ,
যোগাও রে মালঞ্চ,
গোপী-ভাব-হৃদে
ধরতে হবে।।

মুখে বল গোউর,
হৃদে হবে প্রেমাঙ্কুর,
ব্রজরসপুর
প্রাপ্ত হবে।।

পোদো হ’লি নোচা,
পাশে বাঁশের খোঁচা
লাগলি অ-চাঁছা,
কোন্ স্বভাবে।।

ভেবে গোঁসাই হরি বলে,
যা থাকে কপালে,
ভজ গে পোদো, এবার
মানুষ ভবে।।

……………………
অধ্যাপক উপেন্দ্রনাথ ভট্টাচার্যের ‘বাংলার বাউল ও বাউল গান’ গ্রন্থ থেকে এই পদটি সংগৃহিত। ১৩৬৪ বঙ্গাব্দে প্রথম প্রকাশিত এই গ্রন্থের বানান অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে। লেখকের এই অস্বাধারণ সংগ্রহের জন্য তার প্রতি ভবঘুরেকথা.কম-এর অশেষ কৃতজ্ঞতা।

এই পদটি সংগ্রহ সম্পর্কে অধ্যাপক উপেন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য মহাশয় লিখেছেন- এই পদটি সংগ্রহ সম্পর্কে অধ্যাপক উপেন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য মহাশয় লিখেছেন- বর্ধমান জেলার বেতালবন গ্রামের বাউল সমাবেশ হইতে বিশেষভাবে সংগৃহিত-

…………………….
আপনার গুরুবাড়ির সাধুসঙ্গ, আখড়া, আশ্রম, দরবার শরীফ, অসাম্প্রদায়িক ওরশের তথ্য প্রদান করে এই দিনপঞ্জিকে আরো সমৃদ্ধ করুন-
voboghurekotha@gmail.com

……………………………….
ভাববাদ-আধ্যাত্মবাদ-সাধুগুরু নিয়ে লিখুন ভবঘুরেকথা.কম-এ
লেখা পাঠিয়ে দিন- voboghurekotha@gmail.com
……………………………….

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

error: Content is protected !!