বাউল ফকির সাধুসঙ্গ

দিল-দরিয়ার মাঝে উঠছে

দিল-দরিয়ার মাঝে উঠছে
আজব কারখানা।
ডুবলে কত রত্ন পাবি,
ভাসলে পরে পাবি না।।

মাঝে মাঝে জাহাজ গেছে,
দাঁড়ি-মাঝি ছয়জন আছে,
নয়জনা তার গুণ টানিছে,
হাল ধরিছে একজনা।।

ধারে ধারে বাগান আছে,
নানাজাতি ফুল ফুটেছে,
সৌরভে জগৎ মেতেছে,
আমার নাসা মাতলো না।।

দরিয়াতে ফুল ফুটেছে,
তাতে ব্রহ্মা-বিষ্ণু-শিব রয়েছে,
তিনকে যে এক করেছে,
তার কিসের ভাবনা।।

অনুরাগে যে ব’সে আছে,
দিলের খবর সে-ই রেখেছে,
মনকে সে ঠিক করেছে,
করেছে হরির সাধনা।।

গোঁসাই গিরিলালে ভণে,
চাকুরে, যাবি কোন্ সাধনে,
ধর গা গুরুর শ্রীচরণে,
নইলে যাওয়া হবে না।।

……………………
অধ্যাপক উপেন্দ্রনাথ ভট্টাচার্যের ‘বাংলার বাউল ও বাউল গান’ গ্রন্থ থেকে এই পদটি সংগৃহিত। ১৩৬৪ বঙ্গাব্দে প্রথম প্রকাশিত এই গ্রন্থের বানান অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে। লেখকের এই অস্বাধারণ সংগ্রহের জন্য তার প্রতি ভবঘুরেকথা.কম-এর অশেষ কৃতজ্ঞতা।

এই পদটি সংগ্রহ সম্পর্কে অধ্যাপক উপেন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য মহাশয় লিখেছেন- এই পদটি সংগ্রহ সম্পর্কে অধ্যাপক উপেন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য মহাশয় লিখেছেন- বর্ধমান জেলার বেতালবন গ্রামের বাউল সমাবেশ হইতে বিশেষভাবে সংগৃহিত-

…………………….
আপনার গুরুবাড়ির সাধুসঙ্গ, আখড়া, আশ্রম, দরবার শরীফ, অসাম্প্রদায়িক ওরশের তথ্য প্রদান করে এই দিনপঞ্জিকে আরো সমৃদ্ধ করুন-
voboghurekotha@gmail.com

……………………………….
ভাববাদ-আধ্যাত্মবাদ-সাধুগুরু নিয়ে লিখুন ভবঘুরেকথা.কম-এ
লেখা পাঠিয়ে দিন- voboghurekotha@gmail.com
……………………………….

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

error: Content is protected !!