ভবঘুরেকথা

কেন পারবি যেতে

কেন পারবি যেতে
প্রেমের পথে
ক’রে বমাল চুরি।
রস-বৃন্দাবন,
সেথায় হচ্ছে ভজন,
লবে নীর বেছে ধন
নিক্তি ধরি’।।

সে দেশে হয় মেয়ে রাজা,
রসিক যারা, তারাই প্রজা;
লোভী কামী চোরের হয় সাজা।
সেথায় চক্ররূপে আছে হংস,
কাম হ’তে প্রেম হচ্ছে অংশ,
মেলে আনন্দ হাপরে,
ফেলছে বস্তু যে রে,
আগুন-পারার দ্বারে
মিলন করি’।।

সে দেশের হয় আচরণ,
সতী নয়, সতীত্ব-সাধন,
আপ্তসুখ নাই, সুখী সর্বক্ষণ;
সেথায় রূপে রূপে হচ্ছে রতি
সম্বন্ধহীন প্রেম-পীরিতি-
প্রকাশ হৃদকমলে,
আনন্দহিল্লোলে
খেলছে অধর তায়
বিন্দু গিরি।।

বিলাস আর বিবর্ত-লীলা,
আনন্দ-মদনের খেলা,
ঐ পর্যন্ত যাচ্ছে তার মেলা;
সেথায় হরি হরণ,
হচ্ছে পূরণ,
অক্রূরের মণি-হরণ,
ফণী নয় সংযোগে,
সদা রয় যোগে,
সদানন্দ রাগে
ত্রিশূল-ধারী।।

সে দেশের হয় এমনি করণ,
চৌকিদার হয় মঞ্জরীগণ,
লোভী-কামী-চোরে হয় মরণ,
গোঁসাই প্রহ্লাদচাঁদের মর্ম বোঝা-
সাপে যেমন ধরে ছুঁচা,
হাউড়ে সেই ঘরেতে প’ড়ে
রংমহলের দ্বারে
ঘুচে গেল হাউড়ের
জারিজুরি।।

……………………
অধ্যাপক উপেন্দ্রনাথ ভট্টাচার্যের ‘বাংলার বাউল ও বাউল গান’ গ্রন্থ থেকে এই পদটি সংগৃহিত। ১৩৬৪ বঙ্গাব্দে প্রথম প্রকাশিত এই গ্রন্থের বানান অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে। লেখকের এই অস্বাধারণ সংগ্রহের জন্য তার প্রতি ভবঘুরেকথা.কম-এর অশেষ কৃতজ্ঞতা।

এই পদটি সংগ্রহ সম্পর্কে অধ্যাপক উপেন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য মহাশয় লিখেছেন- এই পদটি সংগ্রহ সম্পর্কে অধ্যাপক উপেন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য মহাশয় লিখেছেন- বর্ধমান জেলার বেতালবন গ্রামের বাউল সমাবেশ হইতে বিশেষভাবে সংগৃহিত-

…………………….
আপনার গুরুবাড়ির সাধুসঙ্গ, আখড়া, আশ্রম, দরবার শরীফ, অসাম্প্রদায়িক ওরশের তথ্য প্রদান করে এই দিনপঞ্জিকে আরো সমৃদ্ধ করুন-
voboghurekotha@gmail.com

……………………………….
ভাববাদ-আধ্যাত্মবাদ-সাধুগুরু নিয়ে লিখুন ভবঘুরেকথা.কম-এ
লেখা পাঠিয়ে দিন- voboghurekotha@gmail.com
……………………………….

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!