বাউল গান সাধু ফকির বয়াতী

কোন্ গুরুর কর অন্বেষণ

বল, কোন্ গুরুর কর অন্বেষণ।
গুরু দেহদাতা মাতা-পিতা এই দুইজন,
তারে কর অন্বেষণ।।

শিক্ষা-দীক্ষা গুরু দুইজন,
কর্ণ করায় মন্ত্র গ্রহণ,
মনের গুরু কল্পতরু,
মূল গুরু আছেন গোপন।।

কর সেই গুরুর সন্ধান
দিয়ে ভক্তি অনুপান,
সিদ্ধ হবে ধ্যান,
তোর ভজন-পূজন।।

অতিথ গুরু চক্ষু সুজন,
দেহের গুরু আছে তেমন,
তাইতে দেয় জীবপত্তন,
হয় জীবের সর্বপ্রাণ নারায়ণ।।

তখন হয় তো দিব্যজ্ঞান,
রত্ন-চক্ষু-দান,
ডোর-কোনীপ নাইকো তার তীর্থ-পর্যটন।।

সাড়ে চব্বিশ গুরু যখন এই দেহে করে গমন,
আদিগুরু হয় কোন্ জন,
কর কোন্ গুরুর বাক্য নির্বাচন।
জেনে সাড়ে চব্বিশ রতি
হও গুরুর সারথি,
ধর্মপথে মুক্তিপথে যার আসন।।

কাতরে কয় দিনমণি,
গুরু পুরুষ কি রমণী,
ষড়পদ্ম-বিলাসিনী
কি ত্বং হি কুলকুণ্ডলিনী।।

আমার হৃদ-পদ্মে নীলপদ্ম আছে,
নীলপদ্মেতে বদ্ধ সোনার পদ্ম
ফুটে রয়েছে এখন।।

……………………
অধ্যাপক উপেন্দ্রনাথ ভট্টাচার্যের ‘বাংলার বাউল ও বাউল গান’ গ্রন্থ থেকে এই পদটি সংগৃহিত। ১৩৬৪ বঙ্গাব্দে প্রথম প্রকাশিত এই গ্রন্থের বানান অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে। লেখকের এই অস্বাধারণ সংগ্রহের জন্য তার প্রতি ভবঘুরেকথা.কম-এর অশেষ কৃতজ্ঞতা।

এই পদটি সংগ্রহ সম্পর্কে অধ্যাপক উপেন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য মহাশয় লিখেছেন- এই পর্যায়ের গানগুলি বীরভূম, বাঁকুড়া, মোদিনীপুর, বর্ধমান, নদীয়া, চব্বিশ পরগণা যশোহর, ফরিদপুর, মুর্শিদাবাদ প্রভৃতি জেলার নানা স্থান হইতে বিভিন্ন সময়ে সংগৃহীত এবং এই মতবাদের সাধিকা নবদ্বীপের শ্রীমতী অমিয়বালা দাসীর গানের সংগ্রহ খাতা ও ঘোষপাড়ার নিকটবর্তী মদনপুরের ফকির আকবর শাহের সংগীত সংগ্রহ খাতা হইতে গৃহীত।

…………………….
আপনার গুরুবাড়ির সাধুসঙ্গ, আখড়া, আশ্রম, দরবার শরীফ, অসাম্প্রদায়িক ওরশের তথ্য প্রদান করে এই দিনপঞ্জিকে আরো সমৃদ্ধ করুন-
voboghurekotha@gmail.com

……………………………….
ভাববাদ-আধ্যাত্মবাদ-সাধুগুরু নিয়ে লিখুন ভবঘুরেকথা.কম-এ
লেখা পাঠিয়ে দিন- voboghurekotha@gmail.com
……………………………….

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

error: Content is protected !!