বাউল ফকির সাধুসঙ্গ

পরাণ আমার সোতের দীয়া

পরাণ আমার সোতের দীয়া!
(আমায় ভাসাইলে কোন্ ঘাটে?)
আগে আন্ধার, পাছে আন্ধার,
আন্ধার নিশুইত ঢালা,-

আন্ধার-মাঝে কেবল বাজে
লহরেরি মালা! (গো)
তারার তলে কেবল চলে
নিশুইত রাতের ধারা;

সাথের সাথী চলে বাতি
নাই গো কূল-কিনারা!
(দিবা রাতি চলে গো)
(বাতি জ্বলে সাথে সাথে গো)
অচিন্ ফুলে নদীর কূলে
ডাকে গো কানা!

(‘কুলে ভিড়া’, ‘ক্ষণেক জিরা’)
অকূল পাড়ি থামতে নারি-
(আর) চলে যে ধারা।
(আমি চলি বে-ঠিকানা)
অকূলের কূল গো!
দরিয়ার সাগর!

‘আয়’ কয় বা কে? কেমন ডাকে?
পাইমু গো লাগর।
তোমার কোলে লইবা তুলে
জুড়াইমু গিয়া!
তোমার বুকে নিবুম সুখে
জুড়াইমু গিয়া।।

……………………
অধ্যাপক উপেন্দ্রনাথ ভট্টাচার্যের ‘বাংলার বাউল ও বাউল গান’ গ্রন্থ থেকে এই পদটি সংগৃহিত। ১৩৬৪ বঙ্গাব্দে প্রথম প্রকাশিত এই গ্রন্থের বানান অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে। লেখকের এই অস্বাধারণ সংগ্রহের জন্য তার প্রতি ভবঘুরেকথা.কম-এর অশেষ কৃতজ্ঞতা।

এই পদটি সংগ্রহ সম্পর্কে অধ্যাপক উপেন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য মহাশয় লিখেছেন- শ্রীললিতমোহন চট্টোপাধ্যায় ও শ্রীচারু বান্দ্যোপাধ্যায় সম্পাদিত ‘বঙ্গবীণা’ নামক প্রাচীন ও আধুনিক বাংলা কাব্য-সংগ্রহ পুস্তক হইতে উদ্ধৃত কয়েকটি বাউল গান।

এই গানগুলি শ্রীযুক্ত ক্ষিতিমোহন সেন মহাশয় কর্তৃক সংগৃহীত বলিয়া পরিচিত।

…………………….
আপনার গুরুবাড়ির সাধুসঙ্গ, আখড়া, আশ্রম, দরবার শরীফ, অসাম্প্রদায়িক ওরশের তথ্য প্রদান করে এই দিনপঞ্জিকে আরো সমৃদ্ধ করুন-
voboghurekotha@gmail.com

……………………………….
ভাববাদ-আধ্যাত্মবাদ-সাধুগুরু নিয়ে লিখুন ভবঘুরেকথা.কম-এ
লেখা পাঠিয়ে দিন- voboghurekotha@gmail.com
……………………………….

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

error: Content is protected !!