পুষ্পধাম সাধুসঙ্গ

জালকুড়ি পুষ্পধাম সাধুসঙ্গ’১৯

“চরণ পাই যেন কালাকালে
ফেলনা ওতুর অধম বলে।।”

সুধি,
জ্ঞানাবতার প্রেমসুধাকর ফকির লালন সাঁইজীর নামাশ্রয় জীবের ভরসা। তাঁরাই জ্ঞান সুধায় সিক্ত হওয়ার আশায় ‘জালকুড়ি পুষ্পধাম’-এর পক্ষ থেকে প্রতি বৎসরের ন্যায় এবারও ৬ষ্ঠ মহতি সাধুসঙ্গের আয়োজন করিয়াছি। গুরুর কৃপায় সাধুগুরুদের চরণধুলি পাইয়া আমাদের জীবন যেন সার্থক হয় সেই প্রার্থনা করি। সাধুসঙ্গে আপনাদের পদধুলি আমরা কামনা করিতেছি। সেইদিন সাধুসেবার সুযোগ পেয়ে যেন আমরা ধন্য হই, সেই কৃপাপ্রার্থী।

২৪ ঘণ্টা উক্ত অনুষ্ঠানে অধিবাস আরম্ভ ২৮ ডিসেম্বর ২০১৯ইং মোতাবেক ১৩ পৌষ ১৪২৬ বাং, রোজ শনিবার বিকেল ৪ ঘটিকায় এবং ২৯ ডিসেম্বর রবিবার পূর্ণ সেবা গ্রহণের পর বিকেল ৪ ঘটিকায় সঙ্গের প্রহর পরিসমাপ্তি হবে। কৃপা কর সঙ্গের পূর্ণ প্রহর আমাদের সঙ্গে থাকিয়া ধন্য করিবেন, এই মিনতি রাখি। পত্রে আহবান ও নিমন্ত্রণ জানানোর জন্য ঘোর অপরাধী। তবে সাধু দয়াময়, মার্জনা ভিক্ষা করি।

উক্ত সাধুসঙ্গ অনুষ্ঠানে লালন সাঁইজিকে নিয়ে মত্ত্ব সাধুগুরু এবং দেশ বরেণ্য প্রখ্যাত অতিথি শিল্পীবৃন্দ উপস্থিত থাকিবেন।

বিনয়াবনত সেবায়ত-
ফকির রমিজ উদ্দিন
পুষ্পধাম, জালকুড়ি, নারায়ণগঞ্জ, বাংলাদেশ।

সময়:
শনিবার বিকাল ৪টা
২৮ ডিসেম্বর ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ
১৩ পৌষ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

স্থান:
পুষ্পধাম, জালকুড়ি, নারায়ণগঞ্জ, বাংলাদেশ।

আয়োজন ও আমন্ত্রণে:
ফকির রমিজ উদ্দিন
পুষ্পধাম, জালকুড়ি, নারায়ণগঞ্জ, বাংলাদেশ।

অনুষ্ঠান সূচি:
১৩ পৌষ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ : ২৮ ডিসেম্বর ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ
রোজ শনিবার
বিকেল ৩:০০-৪:০০ – সাধুবৃন্দের আগমন
বিকেল ৪:০০-৪:৩০ – আসন গ্রহণ ও অধিবাস শুরু
বিকেল ৪:৩০-৫:০০ – জ্ঞান রত্নাকর ফকির লালন সাঁইজীর জীবনলীলা স্মরণ।
সন্ধ্যা ৫৬:৩০-৭:৩০ – গুরুকর্ম।
সন্ধ্যা ৭:৩০-৮:৩০ – দীন ডাকা ও চা-মুড়ি সেবা।
রাত ৮:৩০-৯:৩০ – দৈন্যগান।
রাত ৯:৩০-১১:৩০ – ফকির লালন সাঁইজির গীতজ্ঞান সুধা পরিবেশন (আমন্ত্রিত সাধুগুরু ও শিল্পীবৃন্দ কর্তৃক)।

১৪৩ পৌষ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ : ২৯ ডিসেম্বর ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ
রোজ রবিবার
সকাল ৬:০০-৭:০০ – গোষ্ঠ গান।
সকাল ৭:০০-৮:০০ – গুরুকর্ম।
সকাল ৮:০০-৯:০০ – বাল্য সেবা।
সকাল ৯:০০- বিকেল ৩:০০ – ভাবসঙ্গীত।
বিকেল ৩:০০-৪:৩০ – পূর্ণ সেবা।
বিকেল ৪:৩০-৫:৩০ – বিদায় প্রণাম।

সংগীত পরিবেশন করবেন:
কুষ্টিয়া-মেহেরপুরেসহ দেশের
প্রবীন সাধুগুরু ও বিশিষ্ট শিল্পীবৃন্দ

: যাতায়াত :

-ঢাকা থেকে-

বাস সার্ভিস

ঢাকার গুলিস্তান-সায়দাবাদ-যাত্রাবাড়ি যে কোনো জায়গা থেকে বাসে করে নারায়ণঞ্জগামী বাসে করে জালকুড়ি নামতে হবে। সেখান থেকে রিকসায় করে তালতলা রমিজ ফকিরের আখড়া বা পুষ্পধাম।

এছাড়া ঢাকার যে কোনো স্থান থেকে বাসে করে শনিরআখড়ার সাইনবোর্ডে নামতে হবে। সেখান থেকে ম্যাক্সিতে করে জালকুড়ি। জালকুড়ি থেকে রিকসায় পুষ্পধাম।

নির্মাতা
ভবঘুরে কথা'র নির্মাতা

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!