হরিচাঁদ ঠাকুর

মতুয়া দ্বাদশ আজ্ঞা

মতুয়া ধর্মের প্রবর্তক শ্রীশ্রী হরিচাঁদ ঠাকুর প্রদত্ত ১২টি আজ্ঞা বা আদেশকে বলা হয়ে থাকে মতুয়া দ্বাদশ আজ্ঞা। শ্রীশ্রী হরিচাঁদ ঠাকুরের দ্বাদশ আজ্ঞা সাথে ছন্দে তা লিখেছেন শ্রীভগবান চন্দ্র বিশ্বাস-

১. সদা সত্য কথা বলিবে।

‘সদা সত্য বলো, সৎ পথে চলো, সত্যের করো সাধন।’

২. পরস্ত্রীকে মাতৃজ্ঞান করিবে।

‘পর নারী প্রতি, রাখিও ভকতি, জননী তুল্য ধারণা।।’

৩. পিতা-মাতাকে ভক্তি করিবে।

‘মাতা পিতা গুরু, তথা হ’তে শুরু, করিবে ভক্তি শিক্ষা।’

৪. জগৎকে প্রেম করিবে।

‘জগতের জীবে, প্রেম আচরিবে, লইবে প্রেমেতে দীক্ষা।।’

৫. চরিত্র পবিত্র ব্যক্তির প্রতি জাতিভেদ করিবে না।

‘জাতি ভেদ জ্ঞান, জানিও অজ্ঞান, সাধুজনে হবে নত।’

৬. কাহারও ধর্ম নিন্দা করিবে না।

‘পর ধর্ম প্রতি, সম অনুভূতি, প্রকাশিতে নিও শিক্ষা।’

৭. বাহ্য অঙ্গ সাধু সাজ ত্যাগ করিবে।

‘বহিরঙ্গ শোভা, নহে মনোলোভা, হৃদয়ে ধর্মের দীক্ষা।।’

৮. হাতে কাজ মুখে নাম করিবে।

‘কাজ ক’রো হাতে, হরিনাম সাথে, মুখে জপ ত্যজি লাজ।’

৯. শ্রী শ্রী হরি মন্দির প্রতিষ্ঠা করিবে।

‘করো ঘরে ঘরে, হৃদয় বাহিরে, হরি মন্দিরের কাজ।।’

১০. ষড়রিপু হইতে সাবধান থাকিবে।

‘সাধনার বলে, ষড় রিপু দলে, সবে কর বশীভূত।।’

১১. দৈনিক প্রার্থনা করিবে।

‘প্রতি দিবসেতে, হরি প্রেমে মেতে, প্রার্থনা করিও সবে।’

১২. ঈশ্বরকে আত্মদান করিবে।

‘জগৎ ঈশ্বরে, আত্মদান করে, চির ধন্য হয়ে র’বে।।’

শ্রীশ্রীহরিচাঁদ ঠাকুরকে ভগবান জ্ঞান করে তার প্রদত্ত দ্বাদশ আজ্ঞা পালন করার মধ্য দিয়ে যারা জীবন পরিচালনা করবেন তিনিই মতুয়া বলে অভিহিত হবেন। এই দ্বাদশ আজ্ঞার বাইরেও আরো বেশ কিছু আজ্ঞা বা নির্দেশ আছে লীলামৃতে।

……………………………
আরো পড়ুন:
গুরুচাঁদের বারো গোঁসাই: এক
গুরুচাঁদের বারো গোঁসাই: দুই
গুরুচাঁদের বারো গোঁসাই: তিন

শ্রীশ্রী গুরুচাঁদ ঠাকুর ও নবযুগের যাত্রা: এক
শ্রীশ্রী গুরুচাঁদ ঠাকুর ও নবযুগের যাত্রা: দুই
শ্রীশ্রী গুরুচাঁদ ঠাকুর ও নবযুগের যাত্রা: তিন

তারকচাঁদের চরিত্রসুধা
অশ্বিনী চরিত্রসুধা
গুরুচাঁদ চরিত
মহান ধর্মগুরু হরিচাঁদ নিয়ে প্রাথমিক পাঠ
হরিলীলামৃত
তিনকড়ি মিয়া গোস্বামী
শ্রী ব্রজমোহন ঠাকুর

……………………………
আরো পড়ুন:

মতুয়া ধর্ম দর্শনের সারমর্ম
মতুয়া মতাদর্শে বিবাহ ও শ্রদ্ধানুষ্ঠান
মতুয়াদের ভগবান কে?
নম:শূদ্রদের পূর্ব পরিচয়: এক
নম:শূদ্রদের পূর্ব পরিচয়: দুই
মতুয়া মতাদর্শে সামাজিক ক্রিয়া

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!