ভবঘুরেকথা

মানুষের ভ্রাতৃত্ব

পরমেশ্বর সমুদয় মানবজাতির পিতামাতা। সুতরাং সমুদয় মানব পরস্পরের ভাই ভগিনী।

জাতিভেদ প্রথা অসত্যে ও অন্যায়ে প্রতিষ্ঠিত। পশুতে ও মানবে, কিংবা পশুতে ও পক্ষীতে যাদৃশ ভিন্নতা লক্ষিত হয়, ভিন্ন ভিন্ন জাতির বা ভিন্ন ভিন্ন শ্রেণীর মনুষ্যের মধ্যে সেরূপ কোন পার্থক্য নাই। ‘জাতি’ বলিয়া যত বিভেদ, সমুদয় মনুষ্যসৃষ্ট ও কৃত্রিম।

জন্মহেতু কোনও মানুষ উচ্চ বা নীচ নহে। সকল মানুষের মধ্যেই ঈশ্বরদত্ত আত্মা আছে ; প্রত্যেক মানুষেরই ঈশ্বরদত্ত সমুদয় সম্পদ লাভের অধিকার আছে। এই স্বাভাবিক অধিকার হইতে কোনও মানুষকে বঞ্চিত করিলে ঘোর অপরাধ হয়।

ঈশ্বরের নিকট যেমন জাতিহেতু কেহ উচ্চ কেহ নীচ নয়, তেমনি সম্ভ্রান্ত শ্রেণীর বলিয়া কিংবা ধনী ও দরিদ্র বলিয়া কোন ভেদ নাই। ঈশ্বর কেবল সকলের হৃদয় ও আচরণ দেখেন, এবং তাহা দ্বারাই মানুষের উচ্চ নীচ বিচার করেন।

জাতিভেদ প্রথা যেমন ধর্ম্মবিরুদ্ধ, তেমনই সংসারে উন্নতি লাভের প্রতিকুল। বিভিন্ন দেশের সহিত বাণিজ্যাদি দ্বারা মানবসমাজে যে ঐহিক উন্নতি হইতে পারে, জাতিভেদ প্রথা তাহাতে বিঘ্ন ঘটায়! জাতিভেদ প্রথাতে ভিন্ন জাতির স্পৃষ্ট অন্ন ভোজন করা বা ভিন্ন জাতীয় ব্যক্তির সহিত বিবাহ সম্বন্ধে আবদ্ধ হওয়া অবিধি।

এই কারণে জাতিভেদ প্রথা মনুষ্যগণের পরস্পরের মধ্যে একতা স্থাপনের বিষম প্রতিকূল। জনসমাজ হইতে এই প্রথা সর্ব্বতোভাবে উঠিয়া যাওয়া প্রয়োজন। ইহা ধর্ম্মের মহাশত্রু, প্রেমের মহাশত্রু, ভ্রাতৃভাবের মহাশত্রু, জাতীয় ঐক্য ও উন্নতির মহাশত্রু।

ঈশ্বরের নিকট যেমন জাতিহেতু কেহ উচ্চ কেহ নীচ নয়, তেমনি সম্ভ্রান্ত শ্রেণীর বলিয়া কিংবা ধনী ও দরিদ্র বলিয়া কোন ভেদ নাই। ঈশ্বর কেবল সকলের হৃদয় ও আচরণ দেখেন, এবং তাহা দ্বারাই মানুষের উচ্চ নীচ বিচার করেন।

…………………………
ব্রাহ্মধর্ম্ম ও ব্রাহ্মসমাজ

……………………………….
ভাববাদ-আধ্যাত্মবাদ-সাধুগুরু নিয়ে লিখুন ভবঘুরেকথা.কম-এ
লেখা পাঠিয়ে দিন- voboghurekotha@gmail.com
……………………………….

………
আরও পড়ুন-
ব্রাহ্মসমাজ
সাধারণ ব্রাহ্মসমাজের সভ্য হইবার যোগ্যতা
ব্রাহ্ম ধর্মের মূল সত্য
ব্রহ্ম মন্দিরের ট্রাস্টডিড
ব্রাহ্মধর্ম্মের মূল সত্য
আত্মা
মানুষের ভ্রাতৃত্ব
উপাসনা ও প্রার্থনা
শাস্ত্র
গুরু
মধ্যবর্ত্তী ও প্রেরিত
সুখ-দু:খ : দু:খবাদ ও আনন্দবাদ
পাপ ও পুণ্য
পুনর্জ্জন্ম
পরকাল
স্বর্গ ও নরক
ধর্ম্ম রক্ষা
পরিবারে পুরুষ ও নারীর অধিকার-সাম্য
ব্রাহ্মসমাজের প্রতি ব্রাহ্মদিগের কর্ত্তব্য
সমবেত উপাসনা
পূর্ণাঙ্গ উপাসনার আদর্শ 
স্তুতি
বিবিধ অবস্থায় প্রার্থনা
নৈমিত্তিক অনুষ্ঠান
সন্তান জন্ম
ব্রাহ্মধর্ম্ম গ্রহণ ও ব্রাহ্মসমাজে প্রবেশ
ধর্ম্মসাধন ব্রতে দীক্ষা
ব্রাহ্মধর্ম্ম গ্রহণ ও ধর্ম্মদীক্ষা
বিবাহ ও তাহার আনুসঙ্গিক অনুষ্ঠান
বিবাহের বাগদান
বিবাহ
মৃত্যু ও অন্ত্যেষ্টি ক্রিয়া
শ্রাদ্ধ
গৃহ প্রবেশ
ব্রহ্ম ও ব্রহ্মের স্বরূপ
ব্রহ্ম ধ্যান
ব্রাহ্মধর্ম
সকলেই কি ব্রাহ্ম?
ব্রাহ্মোপসনা প্রচলন ও পদ্ধতি
আদি ব্রাহ্ম সমাজ ও “নব হিন্দু সম্প্রদায়”
পূর্ণাঙ্গ উপাসনার আদর্শ

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!