সদগুরু সঙ্গ

সদগুরু সঙ্গ

-সত্যানন্দ মহারাজ

আমরা সবাই বুদ্ধিমান হতে চাই। আমি যে সবার থেকে বেশি বুদ্ধিমান তা প্রমাণ করার জন্য সদা-সর্বদা প্রমাণ করার জন্য ছটফট করি, তা যে কোন মূল্যেই হোক না কেন।

কিন্তু পরক্ষণেই আবার দু:খ পাই। কারণ যখন দেখি যে আমার বুদ্ধি কোন একটা জায়গায় গিয়ে ধাক্কা খেয়ে যাচ্ছে, নচেৎ কোন জায়গায় গিয়ে সীমাবদ্ধ হয়ে যাচ্ছে। তখন দেখতে পাই আমার জ্ঞান সীমিত।

পরক্ষণেই শুরু হয় উত্তোরণের চেষ্টা নতুবা হতাশা আর ক্লান্তিতে-মনের মধ্যে বাসা বাঁধে অবসন্নতা। শুরু হয় অধ:পতন।

ভালবাসার ক্ষেত্রেও দেখি সেই এক রূপ। যাঁকে মনে হল ভালবেসেছি, পরক্ষণেই দেখতে পাই সে আমার নয়।

কোথায় কেন জানি না-মনের মধ্যে আঘাত পাই। গুমরে ওঠে মন, চোখে আসে জল ভরে। তাহলে কি?…

তখনই একটা গান মনে আসে রামপ্রসাদের- ‘এ পৃথিবীর কেউ ভালো তো বাসে না, এ পৃথিবী ভালবাসিতে জানে না।’

তাহলে আমরা যাকে ভালবাসা বলি, তা কি?

সাধু-মহাত্মারা বলেন- ‘তা হল আসক্তি এবং মোহ। আমরা সত্যিকারের ভালবাসা কি, জানি না। ভালবাসা হল- বন্ধনহীন এক প্রেম, যা আসে আসক্তিহীন, নি:স্বার্থপর ও নিহংকারী ভাবনা থেকে।’

আর বুদ্ধির কথায় একটি কথা মনে আসে- ‘যে জনা কৃষ্ণ ভজে, সে বড় চতুর।’

কারণ আমরা কাম, ক্রোধ, লোভ, মোহ, মদ্ ও মাৎসর্য্যের দাস। তাই আমাদের বুদ্ধি দাসত্ব-বুদ্ধি এবং জ্ঞানও তাই সীমাবদ্ধ- কারণ এই জ্ঞান আমাদের মায়া থেকে মুক্ত করতে পারে না।

তাই চাই সদগুরু সঙ্গ।

তাঁর কৃপা ও শিক্ষায় আমরা জ্ঞানীও প্রেমিক হব।

……………………………………
আরো পড়ুন:
গুরুজ্ঞান
গুরু শিষ্য ধারণা
ত্রিতাপ জ্বালা

সদগুরু সঙ্গ
এটা মহাপুরুষের দেশ
ভগবানের সর্বব্যাপীতা
জীবনধারা
ভগবান কোথায় থাকেন?
সংসার ধর্ম
ভগবানকে কেন ডাকি?
আমার জীবন জুড়িয়ে দাও
জীবাত্মা ও পরমাত্মা
পরশ পাথর
খারাপ দিন
সব থেকে বড় হৃদয়
রথ ও রথের মেলা
আমরা সাধারণ মানুষ
কি ভাবে সংসার করবো?

প্রাসঙ্গিক লেখা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!