ভবঘুরেকথা
শ্রী ব্রজমোহন ঠাকুর মতুয়া

শ্রী ব্রজমোহন ঠাকুরের ১ম মহাপ্রয়াণে মহা-মহোৎসব ও মতুয়া ভক্ত মহামিলন উৎসব

সুধী,

শ্রী হরি সহায়

পূর্বেবঙ্গে পাজিপুথি পাড়ায় আটঘড় কুরিয়ানায় ছিল শ্রী ব্রজমোহন ঠাকুরের পূর্বেপুরুষের নিবাস। বর্তমান বসতি বরিশাল বিভাগের বাকেরগঞ্জ থানার ৬নং ফরিদপুর ইউনিয়নের ভাতশালা গ্রামে। শ্রী ব্রজমোহন ঠাকুরের জন্ম ১৬ই পৌষ ১৩৪৯ বঙ্গাব্দে পূর্ণিমা তিথির বৃহস্পতিবার দিনে।

তার পিতা শ্রী বিপিনচাঁন ঠাকুর আর মাতা শ্রী কুসুম কুমারি বালা। পিতামহ শ্রীরামচরণ ঠাকুর প্রপিতামহ শ্রী মঙ্গল ঠাকুর। শ্রী ব্রজমোহন ঠাকুরের গুরুদেব ছিলেন শ্রী জগবন্ধু ঠাকুর। গুরুদেব শ্রী জগবন্ধু ঠাকুর ছিলেন শিবাবতার পতিত পাবন ভগবান শ্রীশ্রী গুরুচাঁদ ঠাকুরের প্রিয় ভক্ত।

শ্রী জগবন্ধু ঠাকুরের বর্তমান আশ্রম পটুয়াখালী জেলাধীন আমতলী থানার তক্তাবুনিয়া ইউনিয়ন জগৎচাঁদ গ্রামে। ব্রাহ্মণবাদী বিরোধী আন্দোলন যখন তুঙ্গে তখন শ্রী ব্রজমোহন ঠাকুরের বয়স ত্রিশ বছর। নিজেদের অস্তিত্ব রক্ষায় তিনি এই আন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পরেন। বাংলা ১৩৮০ সনে তিনি প্রথম এই আন্দোলনে সক্রিয়ভাবে যোগদান করেন। এরই ধারাবাহিকতায় তাঁর কাকা শ্রী নরসিংহ ঠাকুর দেহত্যাগ করলে তিনি তার পারলৌকিক ক্রিয়া নিজে মতুয়া বিধান মতে করেন।

গতবছর তিরোধান দিবস হবে ৯ পৌষ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ/২৫ ডিসেম্বর ২০২১ খ্রিস্টাব্দে শ্রী ব্রজমোহন ঠাকুর ভক্তদের কাঁদিয়ে দেহত্যাগ করেন। শ্রী ব্রজমোহন ঠাকুরের স্মরণে আগামী ২৪ ফাল্গুন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ/৯ মার্চ ২০২২ খ্রীস্টাব্দে মহা-মতুয়াচার্য্য শ্রী ব্রজমোহন ঠাকুরের ১ম মহাপ্রয়াণে “মহা-মহোৎসব ও মতুয়া ভক্ত মহা মিলন উৎসব” আয়োজিত হতে চলেছে।

মহতী এই মহোৎসবে জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিষেশে সকলকে আমন্ত্রিত।

মহা-মহোৎসব অঙ্গন।
শ্রী ব্রজমোহন ঠাকুর আশ্রম বাড়ী।
গুরুপাট ভাতশালা, বাকেরগঞ্জ, বরিশাল, বাংলাদেশ।

শুভানুষ্ঠিনিকা:

বুধবার
২৪ ফাল্গুন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ।
৯ মার্চ ২০২২ খ্রীস্টাব্দ।

উৎসব অঙ্গন:

শ্রীশ্রী শান্তি হরিচাঁদ ব্রজমোহন ঠাকুর মন্দির
গুরুধাম ভাতশালা, বাকেরগঞ্জ, বরিশাল, বাংলাদেশ।

আয়োজনে:

পূর্ণব্রহ্ম শ্রীশ্রী হরিঠাকুর সেবা মহাসংঘ, বাংলাদেশ।

প্রচারে:

শ্রী ব্রজমোহন ঠাকুরের সকল শিষ্য ও ভক্তবৃন্দ।

প্রয়োজনে:

০১৭৪৩৮৬০৯৭১
০১৭৫৫৮১১৮৪০

…………………
আরো পড়ুন-
গুরুচাঁদ ঠাকুরের রাজনীতি ভাবনা: এক
গুরুচাঁদ ঠাকুরের রাজনীতি ভাবনা: দুই
মতুয়া ধর্ম দর্শনের সারমর্ম
মতুয়া মতাদর্শে বিবাহ ও শ্রদ্ধানুষ্ঠান
মতুয়াদের ভগবান কে?
মতুয়াধর্মে জাতিভেদ নেই
মতুয়া মতাদর্শে দেহতত্ত্ব
মতুয়া মতাদর্শে শিক্ষা বিস্তার
মতুয়াধর্মে জন্মগত গুণ নয়, কর্মগুণই মহত্বপূর্ণ

……………………………….

ভাববাদ-আধ্যাত্মবাদ-সাধুগুরু নিয়ে লিখুন ভবঘুরেকথা.কম-এ
লেখা পাঠিয়ে দিন- voboghurekotha@gmail.com

……………………………….

আরো পড়ুন:

ফকির লালন সাঁই

ফকির লালনের ফকিরি

ফকির লালন সাঁইজি

চাতক বাঁচে কেমনে

কে বলে রে আমি আমি

বিশ্ববাঙালি লালন শাহ্ফকির লালন সাঁইজির শ্রীরূপ

গুরুপূর্ণিমা ও ফকির লালন

বিকৃত হচ্ছে লালনের বাণী?

লালন ফকিরের আজব কারখানা

মহাত্মা লালন সাঁইজির দোলপূর্ণিমা

লালন ফকির ও একটি আক্ষেপের আখ্যান

লালন আখড়ায় মেলা নয় হোক সাধুসঙ্গ

লালন অক্ষ কিংবা দ্রাঘিমা বিচ্ছিন্ন এক নক্ষত্র!

লালনের গান কেন শুনতে হবে? কেন শোনাতে হবে?

লালন গানের ‘বাজার বেড়েছে গুরুবাদ গুরুত্ব পায়নি’

‘গুরু দোহাই তোমার মনকে আমার লওগো সুপথে’

মহাত্মা ফকির লালন সাঁইজির স্মরণে বিশ্ব লালন দিবস

মহাত্মা ফকির লালন সাঁইজি: এক

মহাত্মা ফকির লালন সাঁইজি: দুই

মহাত্মা ফকির লালন সাঁইজি: তিন

লালন ফকিরের নববিধান: এক

লালন ফকিরের নববিধান: দুই

লালন ফকিরের নববিধান: তিন

লালন সাঁইজির খোঁজে: এক

লালন সাঁইজির খোঁজে: দুই

লালন সাধনায় গুরু : এক

লালন সাধনায় গুরু : দুই

লালন সাধনায় গুরু : তিন

লালন-গীতির দর্শন ও আধ্যাত্মিকতা: এক

লালন-গীতির দর্শন ও আধ্যাত্মিকতা: দুই

…………………………..

আরো পড়ুন:

মাই ডিভাইন জার্নি : এক :: মানুষ গুরু নিষ্ঠা যার

মাই ডিভাইন জার্নি : দুই :: কবে সাধুর চরণ ধুলি মোর লাগবে গায়

মাই ডিভাইন জার্নি : তিন :: কোন মানুষের বাস কোন দলে

মাই ডিভাইন জার্নি : চার :: গুরু পদে মতি আমার কৈ হল

মাই ডিভাইন জার্নি : পাঁচ :: পাপীর ভাগ্যে এমন দিন কি আর হবে রে

মাই ডিভাইন জার্নি : ছয় :: সোনার মানুষ ভাসছে রসে

মাই ডিভাইন জার্নি : সাত :: ডুবে দেখ দেখি মন কীরূপ লীলাময়

মাই ডিভাইন জার্নি : আট :: আর কি হবে এমন জনম বসবো সাধুর মেলে

মাই ডিভাইন জার্নি : নয় :: কেন ডুবলি না মন গুরুর চরণে

মাই ডিভাইন জার্নি : দশ :: যে নাম স্মরণে যাবে জঠর যন্ত্রণা

মাই ডিভাইন জার্নি : এগারো :: ত্বরাও গুরু নিজগুণে

মাই ডিভাইন জার্নি : বারো :: তোমার দয়া বিনে চরণ সাধবো কি মতে

মাই ডিভাইন জার্নি : তেরো :: দাসের যোগ্য নই চরণে

মাই ডিভাইন জার্নি :চৌদ্দ :: ভক্তি দাও হে যেন চরণ পাই

মাই ডিভাইন জার্নি: পনের:: ভক্তের দ্বারে বাঁধা আছেন সাঁই

মাই ডিভাইন জার্নি : ষোল:: ধর মানুষ রূপ নেহারে

মাই ডিভাইন জার্নি : সতের:: গুরুপদে ভক্তিহীন হয়ে

মাই ডিভাইন জার্নি : আঠার:: রাখিলেন সাঁই কূপজল করে

মাই ডিভাইন জার্নি :উনিশ :: আমি দাসের দাস যোগ্য নই

মাই ডিভাইন জার্নি : বিশ :: কোন মানুষের করি ভজনা

মাই ডিভাইন জার্নি : একুশ :: এসব দেখি কানার হাটবাজার

 

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!